‘মানুষের মৃত্যু হলে’ কবিতাটির ভাববস্তু বিশ্লেষণ করো।   অথবা  ‘মানুষের মৃত্যু হলে’ কবিতাটির নামকরণের সার্থকতা বিচার করো।  অথবা   ‘মানুষের মৃত্যু হলে’ কবিতায় জীবনানন্দ দাশ মৃত্যু ও মৃত্যুহীন জীবনের যে পরিচয় দিয়েছেন তা বিশ্লেষণ করো।   অথবা   ‘মানুষের মৃত্যু হলে’ কবিতায় কবি জীবনানন্দ দাশ সময় চেতনার অভিনব ভাষ্য রচনা করেছেন- আলোচনা করো।

রবীন্দ্র পরবর্তী সময়কালে বাংলা কাব্যসাহিত্যে জীবনানন্দ দাশ একজন স্মরণীয় ব্যক্তিত্ব। তাঁর কবিতার মধ্যে দুটি বিষয় গুরুত্বপূর্ণ- ইতিহাস চেতনা ও সময়জ্ঞান। ‘মানুষের মৃত্যু হলে’ কবিতায় কবি জীবনানন্দ দাশ মৃত্যু ও মৃত্যুহীন জীবনের পরিচয় যেমন তুলে ধরেছেন তেমনি সময় চেতনার এক অভিনব ভাষ্য রচনা করেছেন। মৃত্যুতে মানুষের জীবনের সমাপ্তি— এই আপাত বাস্তবতা প্রকৃত জীবন সত্য নয়। জীবন … বিস্তারিত পড়ুন

Graphic designer job. Our team dm developments north west. Auburn university scholarships 2024.