সমাজ ভাষা বিজ্ঞান কাকে বলে? সমাজ ভাষা বিজ্ঞানের বিভিন্ন দিকগুলি উল্লেখ করুন।

সমাজ ভাষা বিজ্ঞান:

সমাজভাষাবিজ্ঞান হলো একটি বিজ্ঞান যা মানুষের সমাজবিজ্ঞানী দৃষ্টিভঙ্গি দিয়ে মানুষের সমাজ এবং তার বিভিন্ন দিক, রীতি, সংস্কৃতি, রাজনীতি, অর্থনীতি, ও সমাজের ন্যায় ব্যবস্থা সহ বিশেষভাবে অধ্যয়ন করে। এই বিজ্ঞানের অধীনে বিভিন্ন দিক অনুসন্ধান করা হয় মানুষের সামাজিক ব্যবস্থা, সংবিধান, আদর্শ, ও সমাজে সামাজিক সংস্কৃতি ইত্যাদির প্রভাব ও উৎপত্তি নির্ধারণ করতে।

সমাজভাষাবিজ্ঞানের বিভিন্ন দিকগুলি:

সামাজিক ব্যবস্থা ও সংবিধান: এই দিকে সমাজভাষাবিজ্ঞান মূলত মানব সমাজের সামাজিক ব্যবস্থা এবং সংবিধান পরিচিত করে। এটি বিভিন্ন সমাজের আদর্শ, রীতি-নীতি, আদর্শ শখ, ইত্যাদি অনুসন্ধান করে তার সাথে যোগাযোগ করে।

সংস্কৃতি এবং শিক্ষা: সংস্কৃতি ও শিক্ষা দিকে সমাজভাষাবিজ্ঞান মানব সমাজের সংস্কৃতি, শিক্ষার পথ, শিক্ষার প্রণালী, শিক্ষক এবং ছাত্র সম্পর্কে বিশেষভাবে অনুসন্ধান করে তার উন্নতি এবং বৃদ্ধি নিরীক্ষণ করে।

রাজনীতি ও শাসন: সমাজভাষাবিজ্ঞান রাজনীতি ও শাসন দিকে মানব সমাজের শাসন, রাজনীতি ব্যবস্থা, প্রশাসনিক কার্যক্রম, এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক প্রস্থানের সংঘটন পরিচিত করে।

অর্থনীতি ও বাজার: অর্থনীতি এবং বাজারের দিকে সমাজভাষাবিজ্ঞান মানব সমাজের অর্থনীতি, বাজার ব্যবস্থা, ও ব্যবসায়িক কার্যক্রম এবং তাদের সামাজিক প্রভাব বিশেষভাবে মনোনিবেশ করে।

নৃগোষ্ঠী ও সমাজ বিজ্ঞান: সমাজভাষাবিজ্ঞান মানব সমাজের নৃগোষ্ঠী, বৃহত্তর ও ছোট পরিবার, এবং তাদের সামাজিক অবস্থা, সামাজিক সংগঠন ইত্যাদি প্রভাবে গুরুত্ব দেখায়।

সমাজভাষাবিজ্ঞানের এই বিভিন্ন দিকগুলি মানব সমাজের বৈচিত্র্য এবং প্রভাব নিরীক্ষণ করে, এটি সমাজ ও মানবিক সম্বন্ধে আগ্রহশীল বিদ্যা।

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Discover more from

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading

Social and preventive pharmacy 8th semester notes pdf download. Most repeated one liner gk – general knowledge questions asked in compitative exams in english part 01. 600w hvlp spray gun, electric paint gun dm developments north west.