ধ্বনি পরিবর্তনের কারণগুলি উল্লেখ করো। এর প্রধান ধারাগুলির সংক্ষিপ্ত পরিচয় দাও।

বাংলা একটা প্রাণবন্ত চলমান ভাষা । বহু বছরের ধীর ও ধারাবাহিক বিবর্তনে বাংলা ভাষার বর্ণ ও সংযুক্ত বর্ণের মূল ধ্বনির নানা পরিবর্তন ঘটেছে । ধ্বনির পরিবর্তনশীলতা বাংলা ভাষাকে আরো আন্তরিক ও প্রাণবন্ত করে তুলেছে । এই পরিবর্তনের পিছনে যে যে কারণগুলি রয়েছে সেগুলি হল —(১) ভৌগোলিক পরিবেশ ও জলবায়ু, (২) উচ্চারণে অসাবধানতা ও উচ্চারণ-কষ্ট লাঘবের জন্য ,(৩) অন্য কোনো ভাষার প্রভাবের জন্য , (৪) শ্রবণ ও বোধের ত্রুটির জন্য এবং সন্নিহিত ধ্বনির প্রভাব জনিত কারণে ধ্বনির পরিবর্তন ঘটে ।

শ্রেণীবিভাগ—এই সমস্ত কারণ গুলি মাথায় রেখে ভাষা বিজ্ঞানীরা ধ্বনি পরিবর্তনকে চারটি শ্রেণিতে বিভক্ত করেছেন । এগুলি হল —

(১) ধ্বনির আগম বা ধ্বন্যাগম 

(২) ধ্বনির লোপ বা ধ্বন্যালোপ

(৩) ধ্বনির স্থানান্তর

(৪) ধ্বনির রূপান্তর ।

(১) ধ্বনির আগম বা ধ্বন্যাগম (Sound Addition) — উচ্চারণকে সহজ ও সরল করবার জন্য বা উচ্চারণের অক্ষমতার জন্য যখন কোন শব্দের আদিতে, মধ্যে ও অন্তে নতুন কোনো ধ্বনির আগমন ঘটে, তখন সেই জাতীয় ধ্বনি পরিবর্তনকে ধ্বন্যাগম বলে । এই ধ্বন্যাগম দুই প্রকারের যথা (i) স্বরাগম ও (ii) ব্যঞ্জনাগম ।

(i) স্বরাগম (Vowel Addition) :- শব্দের প্রথমে, মধ্যে ও অন্তে যখন কোনো স্বরবর্ণের আগমন ঘটে তখন তাকে স্বরাগম বলে । স্বরাগম তিন প্রকারের—

(ক) আদি স্বরাগম (Vowel Prothesis )— যেমন স্পর্ধা > আস্পর্ধা, স্টেশন > ইস্টিশন, স্টেট > এস্টেট । অর্থাৎ শব্দের প্রথমে আ, ই, এ ধ্বনির আগমন ঘটেছে ।

(খ) মধ্য স্বরাগম (Vowel Insertion)— শ্লোক > শোলোক,  রত্ন > রতন, প্রীতি > পিরীতি -এখানে শব্দের মধ্যে ও, অ , ই ধ্বনিগুলির আগমন ঘটেছে ।

(গ) অন্ত স্বরাগম (Vowel Catathesis)— বেঞ্চ > বেঞ্চি, সত্য > সত্যি,  ল্যাম্প > ল্যাম্পো প্রভৃতি -এখানে ই, ও অ স্বরধ্বনি গুলো শব্দের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ।

(ii) ব্যঞ্জনাগম (Consonant Addition) শব্দ মধ্যে যখন ব্যঞ্জনধ্বনির আগমন ঘটে তখন সেই প্রক্রিয়াকে বলে ব্যঞ্জনাগম । ব্যঞ্জনাগম ও তিন প্রকার — (ক) আদি, (খ) মধ্য ও (গ) অন্ত ব্যঞ্জনাগম ।

(ক) আদি ব্যঞ্জনাগম (Consonant Prothesis)—উজু > রুজু , ওঝা > রোজা , এখানে শব্দের আদিতে ‘র’ এর আগমন ঘটেছে ।

(খ) মধ্য ব্যঞ্জনাগম (Glide Insertion)— অম্ল > অম্বল, বানর > বান্দর, পোড়ামুখী > পোড়ারমুখী প্রভৃতি । এখানে ব, দ, র ব্যঞ্জনধ্বনিগুলি শব্দের মধ্যে এসেছে ।

(গ) অন্ত ব্যঞ্জনাগম (Consonant Catathesis)— সীমা > সীমানা , ধনু > ধনুক, নানা > নানান – শব্দের শেষে ‘না’, ‘ক’, ‘ন’ বর্ণের আগমন ঘটে শব্দগুলিকে সরলীকরণ করা হয়েছে ।

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Discover more from

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading

Basic to intermediate knowledge. Saya menawarkan waktu pengerjaan cepat dan terjemahan berkualitas tinggi untuk beragam proyek. Tattoo box a journey through time and ink : from la to provence tattoo box.