কৈবর্ত বিদ্রোহের উপর একটি সংক্ষিপ্ত টীকা লেখো।

ভূমিকা: দ্বিতীয় মহীপালের রাজত্বকালে (১০৭০৭১ খ্রি)কৈবৰ্ত দিব্যের নেতৃত্বে বরেন্দ্রভূমিতে যে বিদ্রোহ হয়েছিল তাকে কৈবৰ্ত বিদ্ৰোহ’ বলা হয়। সন্ধ্যাকর নন্দীর রামচরিত’ থেকে কৈবৰ্ত বিদ্রোহের কথা জানা যায়।

কৈবর্ত বিদ্রোহের কারণ

বিদ্রোহের কারণ:– কৈবৰ্তরা কেন বিদ্রোহ করেছিল তা নিয়ে ঐতিহাসিকদের মধ্যে মতবিরোধ আছে।

প্রথমত:- পালরাজা রাজ্যপালের মন্ত্রী হন কৈবর্ত যশোদাস তারপর থেকে কৈবর্তদের রাজনৈতিক উত্থানের সূচনা হয়।

দ্বিতীয়তঃকৈবৰ্ত দিব্য ছিলেন উচ্চাকাঙ্ক্ষী ব্যক্তি। পাল রাজাদের দুর্বলতা, অভ্যন্তরীণ গোলযোগ এবং রাজপরিবারের অন্তর্দ্বন্দ্বের সুযোগে দিব্য বিদ্রোহ ঘোষণা করেন।

দিব্যের জয়:- বিদ্রোহীদের হাতে পালরাজা মহীপাল নিহত হন। বিদ্রোহে জয়লাভ করে দিব্য বরেন্দ্রতে তার ক্ষমতা প্রতিষ্ঠা করেন। দিব্য-র মৃত্যুর পর রূদোক ও ভীম সিংহাসনলাভ করেন।

বিদ্রোহ দমনঃপালরাজা রামপাল কয়েকজন আঞ্চলিক সামন্তরাজাদের সাহায্য নিয়ে কৈবর্ত শাসক ভীমকে পরাজিত ও নিহত করেন এবং বরেন্দ্র উদ্ধার করেন।

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Discover more from

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading

Contact seán silla for professional translation solutions. Lenard’s terror strikes is a fictional story with fictional characters. Luxury exclusive van from naples airport to sorrento coast.