উদাহরণসহ সংজ্ঞা লেখোঃ   জোড়কলম অথবা অভিশ্রুতি।

জোড়কলম শব্দ

একাধিক রূপের মিশ্রণের ফলেই তৈরি হয় পাের্টম্যানটু ওয়ার্ড বা জোড়কলম শব্দ। যখন একটি শব্দ বা শব্দাংশের সঙ্গে অন্য শব্দ বা শব্দাংশ। জুড়ে একটি নতুন শব্দ তৈরি করা হয়, তখন তাকে বলে জোড়কলম শব্দ।

যেমন-আরবি ‘মিন্নৎ’ শব্দের প্রথমাংশ এবং সংস্কৃত ‘বিজ্ঞপ্তি’ শব্দের শেষাংশ জুড়ে তৈরি হয়েছে জোড়কলম শব্দ ‘মিনতি’। জোড়কলম শব্দ ‘ধোঁয়াশা’ সৃষ্টি হয়েছে তেমনি ‘ধোঁয়া’ শব্দের প্রথমাংশ এবং ‘কুয়াশা’ শব্দের শেষাংশ জুড়ে। জোড়কলম শব্দসৃষ্টি তাই রূপের মিশ্রণগত নিষ্পাদন প্রক্রিয়া। জোড়কলম শব্দ এমনই এক রূপমূল যা দিয়ে একাধিক রূপ-বাক্যতাত্ত্বিক বৈশিষ্ট্য বােঝানাে হয়। একাধিক রূপমূলের সমবায় হল জোড়কলম শব্দ। যে দুটি শব্দের যােগসাধন ঘটে, তাদের অর্থ জোড়কলম শব্দে সমানভাবে গুরুত্ব পায়।

অভিশ্রুত

অপিনিহিতির প্রভাবজাত ই কিংবা উ-ধ্বনি পূর্ববর্তী স্বরধ্বনির সঙ্গে মিলে শব্দের পরিবর্তন ঘটালে তাকে অভিশ্রুতি বলে।  যেমন : মানিয়া > মাইন্যা > মেনে, করিয়া > কইর্যা > করে, বাছিয়া > বাইছ্যা > বেছে, শহরিয়া > শহইর্যা > শহুরে, মাছুয়া > মাউছ্যা > মেছাে, ।

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Discover more from

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading

Novel drug delivery systems 7th semester notes pdf download. Photoshop dm developments north west. Business education project topics and materials.