অধিকারের আদর্শবাদী তত্ত্বটি আলোচনা কর।

অধিকার সম্পর্কে আদর্শবাদী মতবাদ

আদর্শবাদী ধারণার মূল কথা: রাষ্ট্রদর্শনে অধিকার বলতে বোঝায় মানুষের ব্যক্তিত্বের বিকাশ ও ব্যক্তিজীবনের সম্যক প্রকাশের জন্য প্রয়োজনীয় সুযোগ-সুবিধা। আদর্শবাদী ধারণা অনুসারে মানুষের অন্তর্নিহিত গুণাবলী বা ব্যক্তিসত্তার পরিপূর্ণ বিকাশের উপযোগী বাহ্যিক পরিবেশই হল অধিকার। তাই অনেকে অধিকার সম্পর্কিত এই আদর্শবাদী তত্ত্বকে অধিকারের ব্যক্তিত্ব তত্ত্ব (Personality Theory of Rights) বলে থাকেন। বলা হয়, প্রত্যেক মানুষের মধ্যেই কিছু অন্তর্নিহিত শক্তি বা ক্ষমতা থাকে। মানুষ এর বিকাশ সাধনের জন্য চেষ্টা করে। একেই ব্যক্তিত্বের বিকাশ বলে। কিন্তু কতকগুলি সুযোগ-সুবিধা বা অবস্থা ব্যতিরেকে তা সম্ভব হয় না। ব্যক্তিত্ব বিকাশের জন্য এই সকল অত্যাবশ্যকীয় সুযোগ-সুবিধাকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে অধিকার বলে। অধ্যাপক ল্যাস্কির কথায়: ‘বস্তুত অধিকার হল সমাজজীবনের সেই সকল অবস্থা যেগুলি ছাড়া কোন মানুষ সাধারণভাবে তার ব্যক্তিত্বের প্রকৃষ্টতম বিকাশে সচেষ্ট হতে পারে না’ (“Rights, in fact are those conditions of social life without which no man can seek, in general, to be himself at his best.”)। আদর্শবাদী তত্ত্ব অনুসারে অধিকার বলতে মানুষের সর্বাঙ্গীণ উন্নয়নের জন্য কতকগুলি বাহ্যিক শর্তকে বোঝায়। এবং ব্যক্তির ব্যক্তিত্বের পরিপূর্ণ বিকাশকে সুনিশ্চিত করাই হল অধিকারের মূল উদ্দেশ্য। অধিকারের আদর্শবাদী মতবাদ ব্যক্তির নৈতিক অধিকারগুলির উপর অধিক গুরুত্ব আরোপ করে। আইনের পরিবর্তে নৈতিক ভিত্তির উপর অধিকারকে প্রতিষ্ঠিত করার ব্যাপারে এই মতবাদের বেশী আগ্রহ।

অধিকারের স্বরূপ: আদর্শবাদী ধারণা অনুসারে (১) সমাজ থেকেই অধিকারের উৎপত্তি হয়। সমাজ মানুষের মঙ্গলের জন্যই অধিকার স্বীকার করে। (২) অধিকারের সঙ্গে কর্তব্য জড়িত থাকে। ব্যক্তি সমাজের একজন হিসাবে অধিকার ভোগ করে। তাই তাকে নির্দিষ্ট কর্তব্য সম্পাদন করতে হয়। একের আত্মবিকাশের অধিকার ভোগ অপরের কর্তব্য পালনের উপর নির্ভরশীল। অধিকার দাবির সঙ্গে অপরের ব্যক্তিত্ব বিকাশের ক্ষেত্রে হস্তক্ষেপ না করার দায়িত্বও ওতপ্রোতভাবে জড়িত। (৩) প্রত্যেক ব্যক্তির আত্মবিকাশে সাহায্য করা সামগ্রিকভাবে সমাজের কর্তব্য। (৪) সামগ্রিক কল্যাণ বা সামাজিক উদ্দেশ্য সাধনের সঙ্গে অধিকার সামঞ্জস্যপূর্ণ হবে। প্রত্যেকের ব্যক্তিত্ব বিকাশের অধিকার সমাজের অন্যান্য সকলের ব্যক্তিত্ব বিকাশের অধিকারের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ হবে।

আদর্শবাদী মতবাদের সমালোচনা:

বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে অধিকারের আদর্শবাদী তত্ত্বের বিরূপ সমালোচনা করা হয়েছে।

  • ব্যক্তিত্বের ধারণা মানসিক বা ভাবগত। তাই ব্যক্তিসত্তার পরিপূর্ণ বিকাশের জন্য উপযুক্ত পরিবেশ কি এই মতবাদ তা নির্ধারণ করতে পারেনি।
  • অধিকারের আদর্শবাদী তত্ত্ব রাষ্ট্রীয় কর্তৃত্বের গুরুত্বকে অবহেলা করে অধিকারের প্রয়োগ সম্পর্কে সঠিক কোন ব্যাখ্যা দিতে পারেনি।
  • এই মতবাদে ব্যক্তির অধিকারকে সমাজকল্যাণের সহায়ক হিসাবে প্রতিপন্ন করা হয়েছে। যদি ব্যক্তির ও সমাজের কল্যাণের মধ্যে বিরোধ বাধে তা হলে কিভাবে তার সমাধান হবে, সে বিষয়ে আদর্শবাদ নীরব।
  • সর্বাত্মক রাষ্ট্রের প্রবক্তারা অধিকারের আদর্শবাদী তত্ত্বের বিকৃত ব্যাখ্যার মাধ্যমে রাষ্ট্রের নৈতিক সত্তাকে চূড়ান্ত বলে ঘোষণা করেছেন এবং রাষ্ট্রের বেদীমূলে ব্যক্তিস্বার্থকে বলি দিয়েছেন।

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Discover more from

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading

Contact us compitative exams mcq questions and answers. January 2, 2024 dm developments north west. Herbal drug technology 6th semester notes pdf download.